Grand Gala Award Ceremony of Bashundhara City Scratch Card Program 2016

“বসুন্ধরা সিটি এক ঘষাতেই দারুণ ঈদ” শীর্ষক ঈদ ক্যাম্পেইনের বিজয়ীদের মধ্যে মেগা গিফট বিতরণের সমাপনী অনুষ্ঠান

“বসুন্ধরা সিটি এক ঘষাতেই দারুণ ঈদ” শীর্ষক ঈদ ক্যাম্পেইনের বিজয়ীদের মধ্যে মেগা গিফট বিতরণের সমাপনী অনুষ্ঠান“বসুন্ধরা সিটি এক ঘষাতেই দারুণ ঈদ” শীর্ষক ঈদ ক্যাম্পেইনের বিজয়ীদের মধ্যে মেগা গিফট বিতরণের সমাপনী অনুষ্ঠান“বসুন্ধরা সিটি এক ঘষাতেই দারুণ ঈদ” শীর্ষক ঈদ ক্যাম্পেইনের বিজয়ীদের মধ্যে মেগা গিফট বিতরণের সমাপনী অনুষ্ঠান

ঢাকা, ২৭শে জুলাই ২০১৬:
দেশের সর্বস্তরের মানুষের শপিংয়ের তীর্থস্থান বলে খ্যাত বসুন্ধরা সিটি শপিং মল আরো একবার তার ক্রেতাদের চমকে দিল পুরো রমজান মাসব্যাপী চলা ‘বসুন্ধরা সিটি এক ঘষাতেই দারুণ ঈদ’ শীর্ষক স্ক্রাচ কার্ড ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে। উল্লেখ্য, ক্যাম্পেইন চলাকালীন সময়ে বসুন্ধরা সিটি শপিং মলে ন্যুনতম ৫০০ টাকার শপিং করে ১৫ হাজারেরও বেশি ক্রেতা জিতে নিয়েছেন স্মার্ট ফোন, এলইডি টিভি, ওয়াশিং মেশিন, মাইক্রোওয়েভ ওভেন, ফ্রিজ, গ্যাস বার্নার, গোল্ড রিং, ডিনার সেট, শাড়ি, কফি মগ, রাইস কুকার, স্যান্ডউইচ মেকারসহ অসংখ্য ইন্সট্যান্ট গিফট। এবার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করে সৌভাগ্যবান ক্রেতাদের হাতে তুলে দেয়া হলো আকর্ষণীয় সব মেগা গিফট। যার মধ্যে ছিলো- টয়োটা ভায়োস কার, ডায়মন্ড সেট, চেরি কার, কাপল থাইল্যান্ড ট্রিপ, মোটরবাইক, এমপোরিও আরমানি রিস্টওয়াচ এবং এয়ার কন্ডিশনারস।

পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের নিজের বক্তব্য তুলে ধরতে গিয়ে বসুন্ধরা সিটি ডেভেলপমন্ট লিমিটেড (বিসিডিএল) এর হেড অব মার্কেটিং জনাব এম.এম. জসীম উদ্দীন বলেন, “যে অভাবনীয় সাড়া আমরা এবারের প্রোগ্রামে পেয়েছি তাতে আশা করছি যে আগামীতে আরো বড় আঙ্গিকে এই আয়োজন করতে পারব।” তিনি উপস্থিত অতিথি, স্পন্সর, দোকান মালিক সমিতি এবং মিডিয়া প্রতিনিধিদের ধন্যবাদ জানান তাদের আন্তরিক সহযোগিতার জন্য। এবং এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন যে, সামনের দিনগুলোতে বসুন্ধরা সিটি আধুনিক ও যুগোপযোগী সেবা নিয়ে ক্রেতাদের কেনাকাটাকে আরো প্রাণবন্ত করে তুলবে।
স্বাগত বক্তব্যে বসুন্ধরা সিটি দোকান মালিক সমিতির প্রেসিডেন্ট জনাব এম এ হান্নান আজাদ বলেন, “একটা ভালো প্রতিষ্ঠান নিজের মুনাফার পাশাপাশি ক্রেতাদের প্রাপ্তির দিকটির জন্যেও দায়বদ্ধ থাকে। এবারের ক্যাম্পেইন আর এই অনুষ্ঠান ক্রেতাদের প্রতি আমাদের সেই দায়বদ্ধতারই প্রকাশ।”

সমাপনী বক্তব্যে বিসিডিএল এর ইনচার্জ এবং সিনিয়র অ্যাডভাইজার(টেকনিক্যাল) টু চেয়ারম্যান, বসুন্ধরা গ্রুপ জনাব টি.আই.এম. লতিফুল হোসেন একটি সফল আয়োজনের জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানানোর পাশাপাশি আশাবাদ ব্যক্ত করেন যে, অতীতের ন্যায় আগামী দিনগুলোতেও বসুন্ধরা সিটি ক্রেতাদের মাঝে শপিংয়ের মধ্যমণি হয়ে থাকবে। তিনি বক্তব্যে আরও উল্লেখ করেন, “এই ব্যস্ততম মলের নিশ্চিত নিরাপত্তা প্রদানে মাননীয় সরকারের সর্বস্তরের আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর আন্তরিক, স্বতঃস্ফূর্ত ও নিবেদিত অংশগ্রহণ আমাদেরকে কৃতজ্ঞতাপাশে আবদ্ধ করেছে। সমগ্র বিসিডিএল-এর নিজস্ব নিরাপত্তা বাহিনী ও আনসার বাহিনী এবং কম্যুনিটি পুলিশের সদস্যগণের ভূমিকাও প্রশংসনীয়।”

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বিসিডিএল এর সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর (একাউন্টস) জনাব শেখ আবদুল আলিম, ইডব্লিউপিডি’র সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর (ল্যান্ড) জনাব লিয়াকত হোসেন, ইডব্লিউপিডি’র সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর (মার্কেটিং এন্ড সেলস) মি. বিদ্যুৎ কুমার ভৌমিক, ইডব্লিউপিডি ও বিসিডিএল এর হেড অব এইচআর অ্যান্ড অ্যাডমিন ক্যাপ্টেন শেখ এহসান রেজা (অবঃ), বিসিডিএল এর সিনিয়র জিএম জনাব মেজর মোস্তফা রাহেল ইমাম (অবঃ) এবং বসুন্ধরা সিটি দোকান মালিক সমিতির সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট জনাব গোলাম মাওলা ও প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বসুন্ধরা সিটি শপিং মলের পক্ষ থেকে ‘বসুন্ধরা সিটি এক ঘষাতেই দারুণ ঈদ’ শীর্ষক ঈদ ক্যাম্পেইনের স্পন্সরদের হাতেও তুলে দেয়া হয় ক্রেস্ট। অনুষ্ঠানের শেষে ছিলো আপ্যায়নের বিশেষ আয়োজন।
প্রথম মেগা পুরস্কার টয়োট ভায়োস তুলে দেওয়া হয় জনাব মোঃ আরিফ খান এবং দ্বিতীয় পুরস্কার চেরি কিউ কিউ থ্রি গাড়ি তুলে দেওয়া হয় জনাব নাজমুল হক খান এর নিকট। এছাড়া, ২টি ডায়মন্ড সেট জিতে নেন যথাক্রমে জনাব রাহাত হোসেন এবং জনাব নাজমুল কাউসার এবং ৪ টি মোটরবাইক তুলে দেওয়া হয় যথাক্রমে মিসেস মরিয়ম বেগম, মিসেস নাজমা আহমেদ, জনাব শাহআলম মিয়া, ও জনাব আব্দুস সাত্তার শাওনের নিকট।

উল্লেখ্য, এ আয়োজনের কোস্পন্সর হিসেবে ছিলেন সিম্ফনি মোবাইল, লুবনান ট্রেড কনসোর্টিয়াম, আর্টিস্টি,আলমাস, ফ্রিল্যান্ড,মোস্তফা মার্ট, মাই-ওয়ান ইলেকট্রনিকসস ও মিনিস্টার হাই টেক পার্ক, অলংকার নিকেতন, কল্লোল লিমিটেড এবং ভেনাস জুয়েলার্স। এছাড়া মিডিয়া পার্টনার হিসেবে ছিলেন চ্যানেল-আই, রেডিও ভূমি, কালের কণ্ঠ, টিভি নিউজ-২৪, বাংলাদেশ প্রতিদিন, অনলাইন বাংলানিউজ২৪.কম, এবং ডেইলি সান।